অপেক্ষা ফুরাতে চললো অবশেষে
আগামীকাল সিলভার স্ক্রিনে মুক্তি পাচ্ছে
বহুল প্রতীক্ষিত ‘ওয়ান্ডার ওম্যান ১৯৮৪’

বিশ্বব্যাপী মুক্তির দিনে আগামীকাল শুক্রবার নগরীর সিলভার স্ক্রিন সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাচ্ছে বহু সুপারহিরো মুভি পরিচালক প্যাটি জেনকিনসের পরিচালিত হলিউডের অ্যাডভেঞ্চার-অ্যাকশন মুভি ‘ওয়ান্ডার ওম্যান ১৯৮৪’।
করোনা ভাইরাস বিনোদন দুনিয়াকে এমন একটা পরিস্থিতির সামনে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে যে, বারবার বদলাতে হয় সিনেমাটির মুক্তির দিনক্ষণ। ওয়ার্নার ব্রাদার্সের ‘ওয়ান্ডার ওম্যান ১৯৮৪’ মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল এ বছর গ্রীষ্মে। করোনার কারণে যা পিছিয়ে আগস্ট, অক্টোবর… থেকে আগামী বছরে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। এবার খানিক ঝুঁকি নিয়ে সংস্থা মুক্তির সিদ্ধান্ত নেয় ক্রিসমাসে। সারা বিশ্বের মুক্তির দিনে বাংলাদেশের দর্শকরাও চলচ্চিত্রটি দেখতে পাবেন।
এর আগে, ২০১৭ সালে সুপারহিরো মুভি ‘ওয়ান্ডার ওমেন’ তৈরি করে দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছিলেন তিনি। সেই বছরই ডিসির মাল্টিস্টারার জাস্টিজ লিগ রিলিজ হলেও ওয়ান্ডার ওম্যানের সাফল্যকে টপকাতে পারেনি। ফলে ২০১৭-এর পর ভক্তরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিল এই সুপারহিরোর দ্বিতীয় সিনেমা কবে আসবে তাই নিয়ে। সেই অপেক্ষা ফুরাতে চললো অবশেষে। ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’র অভিনেত্রী গ্যাল গ্যাডট থাকছেন ‘ওয়ান্ডার ওম্যান ১৯৮৪’-এও। স্টিভের চরিত্রে রয়েছেন ক্রিস পাইন, চিতা অবতারে ক্রিস্টেন উইগ ও ভিলেন ম্যাক্সওয়েল লর্ডের ভূমিকায় পেদ্রো পাসকেল।
‘ওয়ান্ডার ওম্যান’-এর সিক্যুয়েল ‘ওয়ান্ডার ওম্যান ১৯৮৪’ সিনেমার ২ মিনিট ২৪ সেকেন্ডের ট্রেলারে পাওয়া যায় জমজমাট এক গল্পের আভাস। সেখানে দেখা গেছে একাধিক টুইস্টও। দেখা গেছে, ডায়নার কাছে ফিরে এসেছে স্টিভ। তবে এটা ভিলেন লর্ডের কারসাজি। এখানে অ্যান্টিহিরো হিসেবে থাকছে ম্যাক্সওয়েল লর্ড, যে মানুষের স্বপ্ন দেখতে পায়।
এছাড়া একই দিনে মুক্তি পাচ্ছে একসঙ্গে বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় নির্মিত গাজী রাকায়েতের ‘গোর’/‘ঞযব এৎধাব’ চলচ্চিত্র এবং ডিজনির এ্যানিমেটেড মুভি ‘স্যুল’।
সিলভার স্ক্রিনে আরো থাকছে চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত সিয়াম-পরীমনির ‘বিশ্বসুন্দরী’।
সিলভার স্ক্রিন সিনেপ্লেক্স নগরীর ষোলশহর এলাকা ফিনলে স্কয়ার শপিং মলের ৭ম তলায় অবস্থিত। টিকেট এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৭০১-৪৪৯৯৫৫ নম্বরে।

Related Article